FANDOM


২০১১ অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর
Australia flag
অস্ট্রেলিয়া
Bangladesh flag
বাংলাদেশ
তারিখ ৯ এপ্রিল ২০১১ – ১৩ এপ্রিল ২০১১
অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক সাকিব আল হাসান
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ অস্ট্রেলিয়া ৩–০ তে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান শেন ওয়াটসন (২৯৪) মাহমুদুল্লাহ (১৩৪)
সর্বাধিক উইকেট মিচেল জনসন (৭) মাশরাফি মুর্তজা (৫)
সিরিজ সেরা শেন ওয়াটসন (অস্ট্রেলিয়া)

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল ৭ এপ্রিল ২০১১ থেকে ১৩ এপ্রিল ২০১১ পর্যন্ত বাংলাদেশ সফর করে। এই সফরে ৩টি ওডিআই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়।[১] এই সফরে রিকি পন্টিং পদত্যাগের কারনে, মাইকেল ক্লার্ককে অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল।[২]

স্কোয়াড Edit

Australia flag[২] Bangladesh flag

সফর ম্যাচ Edit

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড একাদশ বনাম অস্ট্রেলিয়ান্স Edit

৭ এপ্রিল ২০১১
০৯:৩০
স্কোরকার্ড
Australia flag
৩০৮/৬ (৫০ ওভার)
Bangladesh flag
২১৮/৭ (৫০ ওভার)
অস্ট্রেলিয়ান্স ৯০ রানে জয়ী
খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম, ফতুল্লা
আম্পায়ার: মাসুদুর রহমান (বাংলাদেশ) এবং নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
মাইকেল হাসি ৬৯* (৫৫)
শুভাগত হোম ১/১৮ (৭ ওভার)
মুশফিকুর রহিম ৬৮ (১০৩)
জন হেস্টিংস ৪/১৫ (৭ ওভার)
  • অস্ট্রেলিয়ান্স টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

ওডিআই সিরিজ Edit

১ম ওডিআই Edit

৯ এপ্রিল
০৯:৩০
স্কোরকার্ড
Australia flag
২৭০/৭ (৫০ ওভার)
Bangladesh flag
২০১০/৫ (৫০ ওভার)
অস্ট্রেলিয়া ৬০ রানে জয়ী
শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর, ঢাকা
আম্পায়ার: ইউহানেস ক্লোয়েত (দক্ষিণ আফ্রিকা) এবং নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: মাইকেল ক্লার্ক (অস্ট্রেলিয়া)
মাইকেল ক্লার্ক ১০১ (১১১)
সোহরাওয়ার্দী শুভ ৩/৪৪ (৮ ওভার)
তামিম ইকবাল ৬২ (৮৯)
মিচেল জনসন ১/২৩ (৮ ওভার)
  • বাংলাদেশ টসে জয়ী হয় এবং ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২য় ওডিআই Edit

১১ এপ্রিল
০৯:৩০
স্কোরকার্ড
Bangladesh flag
২২৯/৭ (৫০ ওভার)
Australia flag
২৩২/১ (২৬ ওভার)
অস্ট্রেলিয়া ৯ উইকেটে জয়ী
শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর, ঢাকা
আম্পায়ার: ইউহানেস ক্লোয়েত (দক্ষিণ আফ্রিকা) এবং শরফুদ্দৌলা (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: শেন ওয়াটসন (অস্ট্রেলিয়া)
মুশফিকুর রহিম ৮১* (৮০)
মিচেল জনসন ৩/৫৪ (১০ ওভার)
শেন ওয়াটসন ১৮৫* (৯৬)
সাকিব আল হাসান ১/৩৫ (৭ ওভার)
  • বাংলাদেশ টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • শেন ওয়াটসন অপরাজিত ১৮৫ রান করেন, যেটিতে তিনি রেকর্ড ১৫টি ছয় মারেন। তার এই স্কোর দ্বারা তিনি একজন অস্ট্রেলীয় কর্তৃক ওডিআইতে সর্বোচ্চ রানের পূর্বের স্কোর অতিক্রম করেন (ম্যাথু হেইডেনের ১৮১ বিপক্ষ নিউজিল্যান্ড) এবং জেভিয়ার মার্শালের কানাডার বিপক্ষে এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছয় (১২ ছয়) মারার পূর্বের রেকর্ড ভাঙ্গেন।[৩] এই স্কোরটি ওডিআই ম্যাচে বাউন্ডারি মেরে সবচেয়ে বেশি রান করার রেকর্ডের অন্তর্ভুক্ত, তিনি ২০০৬ সালে হার্সেল গিবজের বাউন্ডারি মেরে ১২৬ রান করার পূর্বের রেকর্ড ভাঙ্গেন।[৪] এটি একদিনের ম্যাচে এক ইনিংসে একজন খেলোয়াড় দ্বারা স্কোর করার সর্বোচ্চ অনুপাতের রেকর্ড, তিনি ৭৯.৭৪% রান করেন।

৩য় ওডিআই Edit

১৩ এপ্রিল
১৪:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
Australia flag
৩৬১/৮ (৫০ ওভার)
Bangladesh flag
২৯৫/৬ (৫০ ওভার)
অস্ট্রেলিয়া ৬৬ রানে জয়ী
শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর, ঢাকা
আম্পায়ার: ইউহানেস ক্লোয়েত (দক্ষিণ আফ্রিকা) এবং এনামুল হক (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: মাইকেল হাসি (অস্ট্রেলিয়া)
মাইকেল হাসি ১০৮ (৯১)
আব্দুর রাজ্জাক ৩/৫৮ (৯ ওভার)
ইমরুল কায়েস ৯৩ (৯৫)
মিচেল জনসন ৩/৬৭ (৯ ওভার)
  • অস্ট্রেলিয়া টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বাংলাদেশের পেসার মাশরাফি মুর্তজা কাল্লুম ফার্গুসনকে আউট করে ১৫০তম ওডিআই উইকেট লাভ করেন।[৫]

তথ্যসূত্র Edit

  1. Australia to tour Bangladesh after World Cup |২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১১ |ইএসপিএন ক্রিকইনফো
  2. ২.০ ২.১ [http://www.espncricinfo.com/bangladesh-v-australia-2011/content/story/508633.html Clarke named captain for Bangladesh tour,ইএসপিএন ক্রিকইনফো }}
  3. Shane Watson hits world-record 15 sixes as Aussies win]|১১ এপ্রিল ২০১১|publisher=বিবিসি স্পোর্টস| archiveurl= http://web.archive.org/web/20110412035329/http://news.bbc.co.uk/sport1/hi/cricket/13035935.stm
  4. Match scorecard|১১ এপ্রিল ২০১১|accessdate=১১ এপ্রিল ২০১১|ইএসপিএন ক্রিকইনফো| archiveurl= http://web.archive.org/web/20110503174338/http://www.espncricinfo.com/bangladesh-v-australia-2011/engine/current/match/503364.html%7C archivedate= ৩ মে ২০১১
  5. Mike Hussey hits ton in Australia win over Bangladesh|১৩ এপ্রিল ২০১১|বিবিসি স্পোর্টস| archiveurl= http://web.archive.org/web/20110414035719/http://news.bbc.co.uk/sport1/hi/cricket/13067396.stm%7C archivedate= ১৪ এপ্রিল ২০১১