FANDOM


আল্লাহ্ (আরবি: ﺍﷲ‎) একটি আরবি শব্দ, ইসলাম ধর্মানুযায়ী যার মানে হল "বিশ্বজগতের একমাত্র স্রষ্টা এবং প্রতিপালকের নাম"। "আল্লাহ" শব্দটি প্রধানতঃ মুসলমানরাই ব্যবহার করে থাকেন। মূলতঃ “আল্লাহ্" নামটি ইসলাম ধর্মে বিশ্বজগতের সৃষ্টিকতার সাধারনভাবে বহুল-ব্যবহৃত নাম। এটি ছাড়াও আরো কিছু নামে সম্বোধন করা হয়। মুসলমানদের ধর্মগ্রন্থ কোরআনে আল্লাহ্‌র নিরানব্বইটি নামের কথা উল্লেখ আছে; তার মধ্যে কয়েকটি হল: সৃষ্টিকতা, ক্ষমাকারী, দয়ালু, অতিদয়ালু, বিচারদিনের মালিক, খাদ্যদাতা, বিশ্বজগতের মালিক প্রভৃতি।

তবে আরবি খ্রিস্টানরাও প্রাচীন আরবকাল থেকে "আল্লাহ" শব্দটি ব্যবহার করে আসছেন। বাহাই, মাল্টাবাসী, মিজরাহী ইহুদি এবং শিখ সম্প্রদায়ও "আল্লাহ" শব্দ ব্যবহার করে থাকেন।[১][২][৩]

ইসলামী বিশ্বাস Edit

ইসলাম ধর্মীয় বিশ্বাস অনুসারে আল্লাহর কিছু বৈশিষ্ট্য হলো:(তথ্যসূত্র প্রয়োজন({{{1}}}))

  • ১. আল্লাহর কোন অংশীদার নেই, কোন সমকক্ষ নেই এবং কোন প্রতিদ্বন্দ্বী নেই
  • ২. আল্লাহর কোন পিতা, মা, পুত্র বা স্ত্রী নেই
  • ৩. কাউকে বা কিছু একটি মধ্যবর্তী হিসেবে কাজ করা ছাড়াই সরাসরি আল্লাহর উপাসনা করা যায়
  • ৪. আল্লাহর কেউ এর উপাসনার প্রয়োজন হয় না
  • ৫. আল্লাহ কারো জবাবদিহি হয় না
  • ৬. আল্লাহ কোন ব্যক্তি বা জিনিসের উপর নির্ভরশীল নয়. বরং সকল ব্যক্তি এবং সবকিছু আল্লাহর উপর নির্ভরশীল
  • ৭. আল্লাহ কারো সহায়তা ছাড়াই সবকিছু সৃষ্টি করতে পারেন
  • ৮. কিছুই আল্লাহর উপরে বা আল্লাহর সঙ্গে তুলনীয় নয়
  • ৯. বিদ্যমান কিছুই নেই যা সম্পূর্ণভাবে আল্লাহর পরাধীন নয়
  • ১০. কেউ প্রতিরোধ করতে পারেন না, যা আল্লাহ প্রদান করে, আর কেউ প্রদান করতে পারেনা যা আল্লাহ প্রতিরোধ করে
  • ১১. শুধুমাত্র আল্লাহই কারো উপকার বা ক্ষতি করতে পারে, এই ক্ষমতা অন্য কেউ রাখেনা

শব্দের ইতিহাস Edit

আল্লাহ লেখায় আরবি বর্ণানুক্রম.png

আরবী ভাষায় লিখিত আল্লাহ নামের অংশসমূহ :
১. আলিফ
২. হামযাতুল ওয়াসল (همزة وصل‎‎)
৩. লাম
৪. লাম
৫. তাশদীদ (شدة‎)
৬. খাড়া আলিফ (ألف خنجرية‎‎)
৭. হা'

"আল্লাহ" শব্দটি আরবি "আল" (বাংলায় যার অর্থ সুনির্দিষ্ট বা একমাত্র) এবং "ইলাহ" (বাংলায় যার অর্থ সৃষ্টিকর্তা) শব্দদ্বয়ের সম্মিলিত রূপ, যার অর্থ দাড়ায় "একমাত্র আললাহ" বা "একক আললাহ"।[৪]। একই শব্দমূল-বিশিষ্ট শব্দ অন্যান্য সেমিটিক ভাষাতেও পাওয়া যায়। উদাহরণস্বরূপ, বলা যায়, হিব্রু এবং আরামাইক ভাষার কথা। প্রাচীন হিব্রু ভাষায় শব্দটি বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই বহুবচন এলোহিম אֱלֹהִ֔ים (কিন্তু অর্থের দিক দিয়ে একবচন) হিসেবে ব্যবহার হয়েছে। আর আরামাইক ভাষায় শব্দটির রূপ এলাহা ܐܠܗܐ বা আলাহা ܐܲܠܵܗܵܐ। কিন্তু এই শব্দটির অর্থ এই সব ভাষাতেই সমার্থক, "একক আললাহ"। শিখ ধর্মগ্রন্থ গুরু গ্রন্থ সাহিবে এই "আল্লাহ" (ਅਲਹੁ) শব্দটি ৩৭বার চেয়ে বেশি বার ব্যবহৃত হয়েছে।[৫]

ইসলাম-পূর্ব আরবেও আল্লাহ নামের ব্যবহার খুঁজে পাওয়া যায়। কিন্তু তা করতো শুধুমাত্র সৃষ্টিকারী দেবতা(খুব সম্ভবতঃ সবচেয়ে শক্তিশালী জন) বুঝাতে।[৬][৭] তবে আল্লাহ সম্পর্কে ধারনা বিভিন্ন ধর্মে বিভিন্ন। ইসলাম-পূর্ব আরবে পৌত্তলিক আরবরা আল্লাহকে একক মনে করতো না। বরং তার সাথে সঙ্গী-সাথী, এবং পুত্র-কন্যার ধারনা সংযুক্ত করেছিলো, যা ইসলামী যুগে সমূলে উত্পাটন করা হয়। ইসলামে আল্লাহ শব্দটি দ্বারা এক, অদ্বিতীয় এবং অবিনশ্বর ঈশ্বরের দিকে ইঙ্গিত করা হয়, এবং সমস্ত স্বর্গীয় গুনবাচক নামকে সেই একক স্বত্তার নাম বলে সংজ্ঞায়িত করা হয়।[৮] ইসলামিক ভাষ্যনুযায়ী, আল্লাহ এক, অদ্বিতীয়, সমস্ত-জগতের-সৃষ্টিকর্তা, সর্বত্র বিরাজমান, একক অধীশ্বর। এই কারণে বর্তমান-যুগের আরব-খ্রীস্টানেরা মুসলিমদের থেকে পার্থক্য সৃষ্টি করতে Allāh al-ʾAb (الله الأب, "God the Father" (অর্থাৎ, ঈশ্বর-পিতা) শব্দ ব্যবহার করে।[৯] এমনিভাবে কুরআনে বর্ণিত আল্লাহশব্দার্থ, এবং হিব্রু বাইবেলে বর্ণিত আল্লাহ শব্দের অর্থে মিল এবং অমিল দুটি আছে।[১০]

ইউনিকোডে আরবী আল্লাহ শব্দের জন্য একটি বিশেষ কোড, = U+FDF2, সংরক্ষিত রাখা আছে।[১১] অনেক আরবী ফন্টেও শব্দটিকে একটি স্বকীয় অক্ষর হিসেবে ডিজাইন করা হয়েছে।[১২]

Allah-green.png
Istanbul, Hagia Sophia, Allah.jpg

মেডেলে আল্লাহর নাম দেখা যাচ্ছে হাগিয়া সফিয়া,ইস্তানবুল,তুরস্কতে।

Dcp7323-Edirne-Eski Camii Allah.png

পুরাতন মসজিদ,তুরস্ক

আরবিতে ব্যবহার Edit

ইসলাম-পূর্ব আরব Edit

ইসলাম-পূর্ব আরবে,মক্কাবাসী পৌত্তলিকরা আল্লাহকে সৃষ্টিকর্তা দেবতা হিসেবে ধারনা করতো, এবং খুব সম্ভবতঃ সবচেয়ে শক্তিশালী দেবতা হিসেবে।[১৩] কিন্তু একক এবং অদ্বিতীয় ঐশ্বরিক শক্তি হিসেবে নয়। বরং পৃথিবী-সৃষ্টিকারী এবং বৃষ্টি-দানকারী স্বত্তা হিসেবে। আল্লাহর প্রকৃত স্বরূপ তাদের ধারনায় খুব পরিষ্কার ছিল না।[৪] তাদের ধারনা ছিলো যে, আল্লাহর আরো সঙ্গী-সাথী আছে, যাদেরকে তারা অধীনস্থ দেবতা হিসেবে পূজা করতো। তারা আরো ধারনা করতো যে, আল্লাহর সঙ্গে জ্বিনজাতির আত্মীয়তা-ধরনের কোনো সম্পর্ক আছে[১৪] তারা আল্লাহর পূত্র আছে বলেও সাব্যস্থ করেছিলো [১৫] এবং তত্কালীন আঞ্চলিক দেবতা লা'ত, উজ্জা, মানাতকে তারা আল্লাহর কন্যা সাব্যস্থ করেছিলো [১৬]। খুব সম্ভবতঃ, মক্কার আরবরা আল্লাহকে ফেরেশতা বা স্বর্গীয় দূত হিসেবে ধারনা করতো।[১৭][১৮] যার কারনে বিপদগ্রস্থ অবস্থায় তারা আল্লাহ ডাকতো।[১৮][১৯] এমনকি নিজেদের নামকরনেও তারা আব্দুল্লাহ(অর্থাৎ, আল্লাহর বান্দা বা গোলাম) শব্দটি ব্যবহার করতো। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, মুহাম্মাদ(স.) এর পিতার নাম ছিলো ʿAbd-Allāh(عبدالله ) আব্দুল্লাহ'[১৮]

ইসলাম Edit

মূল নিবন্ধ:ইসলামে ঈশ্বরের ধারণা আরো দেখুন

ইসলামিক ভাষ্যমতে, আল্লাহ হলো সর্বশক্তিমান স্বত্তার প্রকৃত নাম,[২০] এবং তার ইচ্ছা এবং আদেশসমূহের প্রতি একনিষ্ঠ আনুগত্য ইসলামী ধর্মবিশ্বাসের মুলকান্ড হিসেবে বিবেচিত হয়।

তথ্যসূত্রEdit

  1. "আল্লাহ" এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা, ২০০৭
  2. আধুনিক মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার বিশ্বকোষ, আল্লাহ
  3. কলম্বিয়া এনসাইক্লোপিডিয়া, আল্লাহ
  4. ৪.০ ৪.১ L. Gardet, Allah, Encyclopaedia of Islam
  5. http://www.srigranth.org ওয়েব্যাক মেশিনে অবস্থিত আর্কাইভ কপি
  6. L. Gardet, "Allah", Encyclopedia of Islam
  7. Smith, Peter (২০০০)। "prayer"। A concise encyclopedia of the Bahá'í Faith। Oxford: Oneworld Publications। পৃ: 274–275। আইএসবিএন 978-1-85168-184-6 
  8. Murata, Sachiko (১৯৯২)। The Tao of Islam : a sourcebook on gender relationships in Islamic thought। Albany NY USA: SUNY। আইএসবিএন 978-0-7914-0914-5 
  9. Lewis, Bernard; Holt, P. M.; Holt, Peter R.; Lambton, Ann Katherine Swynford (১৯৭৭)। The Cambridge history of Islam। Cambridge, Eng: University Press। পৃ: ৩২। আইএসবিএন 978-0-521-29135-4 
  10. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Peters1 নামের refগুলির জন্য কোন টেক্সট প্রদান করা হয়নি
  11. Unicode Standard 5.0, p.479,492
  12. See Qur'an 13:16 ; 29:61–63; 31:25; 39:38)
  13. See Qur'an 37:158)
  14. See Qur'an (6:100)
  15. See Qur'an (53:19–22 ; 16:57 ; 37:149)
  16. See Qur'an (53:26–27)
  17. ১৮.০ ১৮.১ ১৮.২ Gerhard Böwering, God and his Attributes, Encyclopedia of the Qur'an
  18. See Qur'an 6:109; 10:22; 16:38; 29:65)
  19. Böwering, Gerhard, God and His Attributes, Encyclopaedia of the Qurʼān, Brill, 2007.

Ad blocker interference detected!


Wikia is a free-to-use site that makes money from advertising. We have a modified experience for viewers using ad blockers

Wikia is not accessible if you’ve made further modifications. Remove the custom ad blocker rule(s) and the page will load as expected.

Also on FANDOM

Random Wiki